টেক গ্রাউন্ড প্রতিনিধি :- কিউপারটিনোতে স্পেসশিপ ক্যাম্পাস তৈরির পর যুক্তরাষ্ট্রে নিজেদের দ্বিতীয় ক্যাম্পাস নির্মাণের ঘোষণা দিয়েছে অ্যাপল।

টেক্সাসের নর্থ অস্টিনে ৩৩ একরের ক্যাম্পাসটি নির্মাণে বিনিয়োগ করা হবে ১ বিলিয়ন ডলার (১০০ কোটি)। আগামী পাঁচ বছরে ডেটা সেন্টার নির্মাণের পেছনে অ্যাপল ব্যয় করবে আরও ১০ বিলিয়ন ডলার (১ হাজার কোটি)। ডেটা সেন্টারগুলোতে মোট ২০ হাজার লোকের কর্মসংস্থান হবে।

গত জানুয়ারিতে ৩০ বিলিয়ন ডলার যুক্তরাষ্ট্রে বিনিয়োগের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলো অ্যাপল। রাজনৈতিক চাপে পড়ে নিজ দেশে বিনিয়োগ করার উদ্যোগ নিয়েছে টেক জায়ান্টটি।

চীনে উৎপাদন করা পণ্য যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করানোর সময় বিপুল পরিমাণে শুল্ক দিতে হয়। এবার এ শুল্ক আরও বাড়ানোর প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। এর ফলে পণ্যের দাম অবধারিতভাবে বেড়ে যাবে।

সব মিলিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের অভ্যন্তরেই অ্যাপলের পণ্য উৎপাদন করা উচিত বলে গত সেপ্টেম্বরে এক টুইট করেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

পরবর্তী তিন বছরে ক্যাম্পাস বাদেও সিয়াটল, স্যান দিয়েগো, ক্যালভার সিটি, ক্যালিফোর্নিয়া, পিটারসবার্গ, নিউইয়র্ক ও বোল্ডার, কলোরাডোতে কারখানা নির্মাণ করবে অ্যাপল।

নতুন ক্যাম্পাসে ইঞ্জিনিয়ারিং, রিসার্চ ও ডেভেলপমেন্ট, ফিন্যান্স ও সেলস বিভাগে কর্মী নিয়োগ দেওয়া হবে। প্রথম দফায় চাকরিতে নিয়োগ দেওয়া হবে ৫ হাজার কর্মীকে। এরপরে বাকি ১৫ হাজার কর্মীকে নিয়োগ দেওয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here